রবিবার l ২০শে সেপ্টেম্বর, ২০২০ ইং l ৫ই আশ্বিন, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ l২রা সফর, ১৪৪২ হিজরী
৪_নাইজেরিয়ান_নাগরিকসহ_সংঘবদ্ধ_প্রতারক_চক্রের_পাঁচ_সদস্যকে_গ্রেফতার_করেছে_র‌্যাব_৪।
শিরোনামঃ
তাড়াশে দুই প্রতারক চকরো ডিবি পুলিশের হাতে গ্রেফতার। হুইল চেয়ার ক্রিকেট বাংলাদেশ এর যৌথ উদ্যোগে সিরাজগঞ্জের বন্যার্ত মানুষের মাঝে ত্রাণ সামগ্রী বিতরণ করেন র‌্যাব-১২। ইয়াবা ট্যাবলেটসহ ০৩ জন মাদক ব্যবসায়ী গ্রেফতারর‌্যাব-১২। র‌্যাব-১২ এর উদ্যোগে সিরাজগঞ্জের মুজিব সড়ক ও নিউ ঢাকা সড়কে বৃক্ষরোপন কর্মসূচী পালন। তাড়াশে বন্যা কবলিত মানুষের পাশে এসে দারালেন লাভলী। ৪_নাইজেরিয়ান_নাগরিকসহ_সংঘবদ্ধ_প্রতারক_চক্রের_পাঁচ_সদস্যকে_গ্রেফতার_করেছে_র‌্যাব_৪। অতিরিক্ত ভাড়া আদায় করায় মোবাইল কোর্ট পরিচালনা করে ২১ জন বাস চালকে ৮৪,০০০/- টাকা জরিমানা। শব্দ দুষন মামলায় পিকনিকের নৌকায় জরিমানা। ১৪ জন অসাধু ব্যবসায়ীকে ১,৫৩,০০০/-জরিমানা করেছে RAB -১২ এর ভ্রাম্যমাণ আদালত। শিরোনাম দিবেন দেশ বাসীকে পবিত্র ঈদুল আজহার শুভেচ্ছা জানিয়াছেন এম ফোর্স পরিবার।

৪_নাইজেরিয়ান_নাগরিকসহ_সংঘবদ্ধ_প্রতারক_চক্রের_পাঁচ_সদস্যকে_গ্রেফতার_করেছে_র‌্যাব_৪।

সাব্বির মির্জা, সিরাজগঞ্জ প্রতিনিধিঃ   

বিভিন্ন সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে পরিচয় ও ঘনিষ্ঠ সম্পর্ক স্থাপন করে দামি উপহার পাঠানোর লোভ দেখিয়ে অভিনব পদ্ধতিতে অনেক লোকের কাছ থেকে লাখ লাখ টাকা হাতিয়ে নিচ্ছিলো একটি সংঘবদ্ধ চক্র। সুনির্দিষ্ট অভিযোগ ও তথ্য উপাত্তের ভিত্তিতে ০৬ আগস্ট ২০২০ তারিখ রাত :০০.৩০ ঘটিকা হতে রাত ০২.৩০ ঘটিকা পর্যন্ত র‌্যাব-৪ এর একটি চৌকস আভিযানিক দল রাজধানীর কাফরুল ও পল্লবী থানাধীন এলাকায় অভিযান পরিচালনা করে প্রতারক চক্রের ৪ জন নাইজেরিয়ানসহ মোট ০৫ জনকে গ্রেফতার করতে সমর্থ হয়। এই গ্রুপের টুম্পা আক্তার নিজেকে বাংলাদেশের একজন কাস্টমস কর্মকর্তা হিসেবে পরিচয় দিয়ে আসছিলেন। গ্রেফতারকৃতদের নিকট থেকে দুইটি মেয়াদোত্তীর্ণ পাসপোর্ট, ব্যাংকে অর্থ জমাকৃত বই, চেকবই, ১২ টি মোবাইল ফোন, একটি প্রাইভেট জিপ গাড়ী, নগদ তিন লক্ষাধিক টাকাসহ হোয়াটসঅ্যাপ-ইমো-ফেসবুকে কথোপকথনের স্ক্রিনশটের কপি জব্দ করা হয়। গ্রেফতারকৃতরা হলেন যথাক্রমেঃ

1| Onuorah nnamdi Frank (৩২)
2| Udeze obinna ruben (৪১)
3| Macduhu Kelvin (৪১)
4| Frank jacob (৩৫) এবং
5| টুম্পা আক্তার (২৩) ,

দীর্ঘদিন যাবৎ ঢাকায় থাকা নাইজেরিয়ান নাগরিকদের একটি চক্র অভিনব কায়দায় বিপরীত লিঙ্গের ব্যক্তিদের সাথে বিভিন্ন সময়ে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম-হোয়াটসঅ্যাপ, ইমো, ফেসবুক ইত্যাদি এর দ্বারা নিজেদেরকে আমেরিকান নাগরিক হিসেবে প্রকাশ করে। পরবর্তীতে একটি বন্ধুত্বপূর্ণ সম্পর্ক তৈরির পর এক পর্যায়ে দামি উপহার বাংলাদেশে পাঠানোর প্রলোভন দেখিয়ে প্রতারণার জাল বিছানো হয়। কিছুদিন পর বাংলাদেশের কাস্টম অফিসার পরিচয়ে এক নারী উপহার আসার কথা বললে তার বিশ্বাসযোগ্যতা বাড়ে এবং পার্সেলটি ছাড়াতে কাস্টমস ভ্যাট/শুল্ক বাবদ টাকা জমা দিতে হবে বলে জানায়। এক পর্যায়ে ভুক্তভোগী সেই বিদেশি প্রতারক বন্ধুকে জানালে বাংলাদেশি বিভিন্ন ব্যাংকে টাকা পাঠানোর কথা বলে লাখ লাখ টাকা পাঠানোর কথা বলে এবং শেষে সে অর্থ আত্মসাৎ করা হয়।

উপরোক্ত বিষয়ে আইনানুগ ব্যবস্থা প্রক্রিয়াধীন এবং গ্রেফতারকৃত প্রতারকদের দেওয়া তথ্য-উপাত্তের ভিত্তিতে তাদের অন্যান্য সহযোগীদের গ্রেফতারের কার্যক্রম অব্যাহত আছে।

© All rights reserved © 2017 ThemesBazar.Com

Desing & Developed BY লিমন কবির